কুকুরের কান্না কি সত্যিই অমঙ্গল ডেকে আনে? জানুন, কুকুর কেন কাঁদে

0

সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে অনেক ধরনের কুসংস্কার রয়েছে। বছরের পর বছর ধরে এগুলো মেনে চলেছি আমরা।  এর মধ্যে এমন কিছু বিষয় আছে যেগুলো কারণ না জেনেই মেনে চলা হয়। বছরের পর বছর, যুগের পর যুগ ধরে সেই বিষয়গুলোকেই আমাদের সমাজ মেনে এসেছে।  এর মধ্যে একটি কুকুরের কান্না। রাত হলে কুকুরের কান্না অনেকেই শুনেছেন।

পাড়ায় যখন কুকুর কাঁদে, বলা হয় কোনও অশুভ কিছু ঘটতে চলেছে। প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে এই ধারণাই বয়ে চলেছে। অনেকের মতে  কুকুর তখনই কাঁদে যখন আশপাশে কোনও ‘অশরীরী আত্মা’ ঘুরে বেড়ায়। যা সাধারণ মানুষের পক্ষে দেখা সম্ভব নয়, সেটার উপস্থিতি টের পায় কুকুররা। তাই তাদের কাছেপিঠে ‘আত্মা’ ঘুরে বেড়ালেই কুকুর নাকি কাঁদতে শুরু করে। আর কুকুর কাঁদলেই লোকজন তখন তাদের তাড়ানোর চেষ্টা করে। এমনটাই বলে থাকেন প্রবীণ মানুষেরা। তবে  এ ব্যাপারে বিজ্ঞান বলছে ভিন্ন কথা।

বিজ্ঞানীরা জানান,  কুকুর কাঁদে না। ওরা ও ভাবে ডাকে। রাতে এ ভাবে আওয়াজ করে দূরে তার সঙ্গীদের কাছে কোনও বার্তা পৌঁছনোর চেষ্টা করে। এ ছাড়া এ ভাবে আওয়াজ করে তার অবস্থানটা সঙ্গীদের জানায়। দ্বিতীয়ত, ওরা প্রাণী। ওদেরও চোট-আঘাত লাগতে পারে। ব্যথা হতে পারে। শরীরে কোনও কষ্ট হতে পারে। সেই পরিস্থিতিকে জানান দিতেই ও ভাবে আওয়াজ করে সঙ্গীদের ডাকে। তৃতীয়ত, কুকুররা একা থাকতে পছন্দ করে না। তাই যখনই একাকীত্ব বোধ করে, তখনই সঙ্গীদের ও ভাবে আওয়াজ করে ডাকে।

Share.

About Author

Leave A Reply